Home

Bangladesh Learning Institutes

Latest Updates

আমাদের স্কুলের সকল শিক্ষকদের মোবাইল নাম্বার যদি করো কাছে থাকে তাহলে এই পেইজে দিয়ে দিবেন দয়া করে।

রুপসা আহম্মদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় এর পাক্তন ছাএী জান্নাতুল রাফিয়া প্রথম আলো কে দেওয়া সাক্ষাৎকার হুবুহ তুলে দরা হলো পড়ায় ভালো, সহশিক্ষা কার্যক্রমেও ১০ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৭:০০ রুপসা স্কুল-কলেজে অনেকে নাচ-গান-বিতর্ক কিংবা খেলাধুলায় যুক্ত থাকেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে উঠে ভাবেন, এসব নাহয় থাক, এবার পড়ালেখায় মন দিই। হারমোনিয়ামটা অযত্নে পড়ে থাকে, ধুলো জমে ছোটবেলায় পাওয়া পুরস্কারগুলোর ওপর...। কিন্তু সহশিক্ষা কার্যক্রমে যুক্ত থাকলে যে আখেরে ক্ষতি নেই, বরং লাভ আছে, সে কথাই বললেন তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনজন মেধাবী শিক্ষার্থী সহশিক্ষা কার্যক্রম বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবনটা রঙিন করেছে জান্নাতুল রাফিয়া স্নাতকোত্তর, মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমার বাড়ি চাঁদপুরে। স্কুল-কলেজে বিতর্ক করতাম। যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলাম, হলে উঠলাম, বিতর্কের সঙ্গে একটা দূরত্ব তৈরি হয়ে গিয়েছিল। তখন মা-বাবাই জোর দিয়ে বললেন, ‘বিতর্কটা ছেড়ো না।’ পড়ালেখায় ভালো রেজাল্ট করতে হবে, বাসা থেকে এমন চাপ কখনোই ছিল না। তবু আল্লাহর রহমতে ৩.৯৭ সিজিপিএ নিয়ে স্নাতক শেষ করেছি। বিভাগে আমার অবস্থান দ্বিতীয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখার পাশাপাশি নিয়মিত বিতর্ক করেছি। টেলিভিশন বিতর্ক, টিআইবি আয়োজিত জাতীয় বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। এ ছাড়া ব্লাড ডোনেশন ক্লাবে কাজ করেছি, বিএনসিসিতে (বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর) ছিলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সায়েন্স সোসাইটির সঙ্গে বিভিন্ন পাঠচক্র, সেমিনারে অংশ নিয়েছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চাঁদপুর জেলার শিক্ষার্থীদের একটা সংগঠন আছে, নাম ডাকাতিয়া। এই সংগঠনের মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজ করি। আমার মনে হয়, ক্লাসরুমের বাইরে সহশিক্ষা কার্যক্রমগুলোই আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবনটা রঙিন করেছে। মাইক্রোবায়োলজি বিভাগে পড়ে সময় বের করা কঠিন। আটটা থেকে পাঁচটা পর্যন্ত ক্লাস, তার মধ্যে ল্যাবে কাজ করতে হয়। ক্লাস মিস হলে বন্ধু বা শিক্ষকদের সহায়তায় সেটা বুঝে নেওয়া যায়, ল্যাব মিস হলে সেটা আর পাওয়া যায় না। কখনো কখনো এত কিছু ‘ম্যানেজ’ করতে কষ্ট হয়েছে, কিন্তু সেটা গায়ে মাখিনি। গ্রামের স্কুল-কলেজে পড়েছি বলে কথায় আঞ্চলিকতার টান ছিল। বিতর্কের চর্চা চালু রেখেছি বলেই সুন্দর করে কথা বলা শিখেছি, নিজেকে উপস্থাপন করা শিখেছি। ভালো রেজাল্টের জন্য বিভাগ থেকে ডিনস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছি। আর পড়ালেখার পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রমে জড়িত থাকার পুরস্কার হিসেবে পেয়েছি রোকেয়া স্বর্ণপদক।

কলেজের সবুজ চত্বরে বাহারি ফুল।

@NCTF Chandpur 2017-10-17

#দূর্যোগপ্রবণ_এলাকায়_স্কুলগুলির_জন্য_শক্তিশালী_পরিকাঠামো_গঠন প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারণে স্কুলগুলি নির্মাণে শক্তিশালী অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে যাতে করে শিশুরা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে কোনও বিরতি ছাড়াই তাদের শিক্ষা চালিয়ে যেতে পারে, গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ১৬ অক্টোবর সোমবার অনুষ্ঠিত #১৪তম_শিশু_সংসদে শিশুদেরকে আশ্বাস দিয়ে এ কথা বলেন। প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এবং সেভ দ্য চিলড্রেন অব বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সহযোগিতায় শিশু দুর্নীতি ও শিশু বিষয়ক বিষয়ক ১৪তম শিশু সংসদের আয়োজন করা হয়। ৩১ টি বন্যা প্রবন জেলার ৩৬ জন সদস্য এই বছরের সংসদে অংশ নেন। ১৪তম শিশু সংসদে #চাঁদপুর জেলার প্রতিনিধিত্ব করেন বাংলাদেশ এনসিটিএফের সহ-সভাপতি ও চাঁদপুর জেলা এনসিটিএফের সভাপতি #মতিয়া_চৌধুরী। উল্লেখ্য শিশু সংসদ একটি জাতীয় প্ল্যাটফর্ম যেখানে শিশুরা ২০০৩ সাল থেকে শিশু অধিকার রক্ষায় এবং তাদের উন্নয়নে কাজ করে। এটি জাতীয় শিশুশিক্ষা ফোর্স (এনসিটিএফ) -এর একটি প্রচারণা সংস্থা, যা ৬৪ টি জেলায় শিশু সংগঠন হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।।

#Congratulations সুখী হন দাম্পত্য জীবনে। Admin

HSC-2017 Result INST: 103942 - KALIPUR HIGH SCHOOL & COLLEGE BUSINESS STUDIES: PASSED=16; NOT PASSED=56; HUMANITIES: PASSED=22; NOT PASSED=70; SCIENCE: PASSED=15; NOT PASSED=8

@Chandpur 2017-06-03

আসসালামুআলাইকুম, বন্ধুরা আপনাদের জন্য নিয়ে আসলো Youtube Channel EduTechWorld ICT বিষয়ক সব তথ্য। যা একজন Student এর কাজে আসবে। বন্ধুরা আপনারা সবাই এই পেজকে লাইক দিয়ে কানেকটেড হয়ে যান।

@HAjigonj,chandpUR 2017-03-17

https://www.facebook.com/Green-Shop-Bd-270651370039807 shobai pagee ta like din.....amra amraito...

কারো কাছে যদি আমাদের স্কুল এর সুন্দর ছবি থাকে, তাহলে আমাদের কে ইনবক্স করতে পারেন, আপনার দেওয়া ছবি ও নাম, আমাদের স্কুল পেজ এ দেওয়া হবে,

এইস এস সি. পরীক্ষার ফলাফল, ২০১৫ ------------------------------------------------------------------------- কুমিল্লা মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০১৫ সালের অনুষ্ঠেয় এইচএসসি পরীক্ষায় এ বছর চাঁদপুর জেলা তেমন আশানুরূপ ফলাফল করতে পারেনি। তবে চাঁদপুর শহরের আল-আমিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজ প্রকাশিত ফলাফলে মধ্যে সবচেয়ে ভালো করেছে। জেলার সর্বাধিক জিপিএ-৫ পেয়েছে এই প্রতিষ্ঠানটি। পরীক্ষার্থী অংশ নেয় মোট ৪৫৩ জন শিক্ষার্থী। মোট কৃতকার্য ৩৮৩ জন শিক্ষার্থী । মোট পাসের হার ৮৪.৩৩%। বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৯৮ জন মানবিক বিভাগ থেকে ১২১ জন ব্যবসায় শিক্ষা থেকে ১৩৪ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। জিপিএ-৫ পেয়েছে সর্বমোট ৪০ জন। বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৬ জন মানবিক বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ জন এবং বাণিজ্য বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ জন। সূত্র: চাঁদপুর ওয়েব

খুব বেশি ভালবাসতে ইচ্ছে করে তোমায়..... খুব বেশি মিস করি তোমায়.......... প্রতিদিন একবার হলেও বলতে ইচ্ছে করে ভালবাসি| শুধু যে তোমায় ভালবাসি.... তোমায় পেলে মনে হয় মনে হয় এই পুরু পৃথিবী পেয়েছি হাতের মুঠোয়.... নিজের করে.... যেমন করে তোমাকে চায়!!!!